ঢাকাসোমবার , ১২ জুন ২০২৩
  1. অগ্নিকান্ড
  2. অনুষ্ঠান
  3. অপরাধ
  4. অবৈধ বালু উত্তোলন
  5. অভিনন্দন
  6. অর্থনীতি
  7. আইন ও বিচার
  8. আওয়ামী লীগ
  9. আওয়ামী লীগে
  10. আক্রান্ত
  11. আটক
  12. আত্মহত্যা
  13. আদালত
  14. আনন্দ মিছিল
  15. আন্তর্জাতিক
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কষ্টের মধ্য দিয়ে আরও একটা মাস যাবে চট্টগ্রামবাসীর

কামরুল ইসলাম চট্রগ্রাম
জুন ১২, ২০২৩ ৩:৩৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

কষ্টের মধ্য দিয়ে আরও একটা মাস যাবে চট্টগ্রামবাসীর

কামরুল ইসলাম

আরও এক মাস পর পর চালু হবে নগরীর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ মুরাদপুর-অক্সিজেন সড়ক। এ সড়ক ব্যবহারকারীদের দুর্ভোগ পোহাতে হবে আরও এক মাসের বেশি। গত এপ্রিলের শেষের দিকে মুরাদপুর মোড়ের কালভার্টের নির্মাণ কাজ শেষ হয়। কালভার্টের নিচে চট্টগ্রাম ওয়াসার পাঁচটি পাইপ লাইন রয়েছে। যা যথাসময়ে সরাতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। যে কারণে কালভার্টের সঙ্গে সড়কের সংযোগ করে এখনো যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া যাচ্ছে না। ফলে ভোগান্তি বেড়েই চলছে এই সড়ক ব্যবহারকারীদের।
দুই মাসেও কালভার্ট নির্মাণের কাজ শেষ না হওয়ায় কাজের ধীরগতির অভিযোগ তুলেছে স্থানীয় ও যাতায়াতকারীরা। তবে যথাসময়ে চট্টগ্রাম ওয়াসা, গ্যাসের পাইপ লাইন ও বিটিসিএল পোল না সরানোর কারণে নির্ধারিত সময়ে সড়ক ও কালভার্টের কাজ শেষ করে সড়কটি যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৩৪ ইঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশন ব্রিগেড প্রকল্প পরিচালক লে. কর্নেল মো. শাহ আলী।
জানতে চাইলে নিয়মিত এই সড়ক ব্যবহারকারী মো. আবুল খায়ের নামের এক ব্যাংক কর্মকর্তা বলেন, মুরাদপুরের কালভার্টটির নির্মাণ কাজ শেষ হলেও নিচ থেকে ওয়াসার পাইপ লাইন না সরানোর কারণে এখনো মুরাদপুর-অক্সিজেন সড়কটি চালু হয়নি। যার কারণে চলাচলের সময় আমাদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। কালভার্টটি বন্ধ থাকায় সড়কে সবসময় যানজট লেগেই থাকে। যেহেতু কালভার্টটির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে অনেকদিন হলো, আমাদের দাবি হচ্ছে দ্রুত বাকি কাজ সম্পন্ন করে সড়কটি যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হোক।
বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৩৪ ইঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশন ব্রিগেড প্রকল্প পরিচালক লে. কর্নেল মো. শাহ আলী বলেন, ঈদের আগে কালভার্টের নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। কালভার্টের নিচে ওয়াসার পাঁচটি পাইপ রয়েছে, যেগুলো সংশ্লিষ্ট সংস্থা এখনো সরাতে পারেনি। এ পাইপগুলো সরিয়ে নিতে পারলে আমরা দ্রুত সময়ের মধ্যে কালভার্টের সাথে সড়কের সংযোগ করে দিতে পারবো।
জানতে চাইলে চট্টগ্রাম ওয়াসার প্রধান প্রকৌশলী মাকসুদ আলম বলেন, মুরাদপুর কালভার্টের নিচে চট্টগ্রাম ওয়াসার পাঁচটি পাইপ লাইন রয়েছে। এই পাঁচটি পাইপ সরানোর পর রাস্তাটি চালু করা যাবে। কয়েকদিনের মধ্যে পাইপ লাইন সরানোর কাজ একাংশ শেষ হবে। পুরো কাজ শেষ করতে আরো এক মাস সময় লাগবে। তবে পাইপ লাইনের একাংশের কাজ শেষ হলে সড়কটি চালু করা যাবে কিনা সেটা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৩৪ ইঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশন ব্রিগেড বলতে পারবে। যেহেতু কালভার্ট এবং ওই সড়কটির কাজ তারা করছে।
উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম শহরের জলাবদ্ধতা নিরসন প্রকল্পের আওতায় মুরাদপুর মোড়ে কালভার্ট নির্মাণের জন্য মুরাদপুর থেকে অক্সিজেন পর্যন্ত সড়কের যান চলাচল গত ১৭ জানুয়ারি থেকে বন্ধ রাখা হয়েছে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৩৪ ইঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশন ব্রিগেড এই সড়কটি সাময়িক বন্ধ রাখার কথা জানিয়ে ওই এলাকায় ব্যানার টাঙিয়েছিল। এ সময় বিকল্প রাস্তা ব্যবহার করার কথাও উল্লেখ করা হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।