ঢাকাWednesday , 7 December 2022
  1. অপরাধ
  2. অভিনন্দন
  3. অর্থনীতি
  4. আইন ও বিচার
  5. আটক
  6. আত্মহত্যা
  7. আন্তর্জাতিক
  8. আর্থিক সহায়তা
  9. আলোচনা সভা
  10. আহত
  11. উদ্বোধন
  12. এক্সিডেন্ট
  13. ওয়াজ মাহফিল
  14. কৃষি বার্তা
  15. খুন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গ্রাম্য সালিশে মারধর, অপমানের ছাত্রের আত্মহত্যা

Link Copied!

গ্রাম্য সালিশে মারধর,
অপমানের ছাত্রের আত্মহত্যা

মোঃ রতন সরকার শ্রীপুর উপজেলা প্রতিনিধি

ছোট ভাইকে বাঁচাতে গ্রাম্য সালিশে অভিযুক্তদের পা ধরে মাপ চেয়েছিল বড়বোন। তাতে মন গলেনি স্থানীয় মেম্বারের। পরে শতশত লোকের সামনে চরম অপমান করা হয় কলেজছাত্র রায়হানের পরিবারকে। সালিশে রায়হানকে মারধরও করা হয়। এই অপমান সইতে না পেরে গলা ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন কলেজ ছাত্র রায়হান (১৯)। এমন অভিযোগ করেন রায়হানের বড় বোন রুমকী।

রায়হানকে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। গতকাল সোমবার রাত ৮টায় গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের মুলাইদ গ্রামের রঙ্গীলা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রায়হান ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা উপজেলার পুরুয়া গ্রামের বাসিন্দা। তিনি ঢাকার মীরপুর পলিটেকনিক্যাল ইন্সিটিটিউটের প্রথম বর্ষের ছাত্র। পরিবারের সঙ্গে শ্রীপুর উপজেলার রঙ্গীলা বাজার এলাকার ভাড়া থাকতেন রায়হান। খবর পেয়ে শ্রীপুর থানা পুলিশ রাত ১১টায় শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে।

advertisement 4

নিহতের বড়বোন রুমকী জানান, তারা প্রায় বিশ বছর ধরে ওই বাড়িতে ভাড়া থাকেন তারা। কলেজ বন্ধ থাকায় তিন মাসের ছুটিতে বাসায় এসেছিল রায়হান। স্থানীয় যুবক রাব্বি ও হাসিবুল রায়হান ও তার বান্ধবিকে জড়িয়ে এলাকায় কুৎসা রটনা করে। এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় গত শুক্রবার বিকেলে রাব্বি ও হাসিবুল রায়হানকে মারধর করে। এ ঘটনা ওই দুই যুবকের পরিবাকে জানালে তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। উল্টো রায়হানকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়।

গত শনিবার বিকেলে রায়হানের বোন রুমকী রাব্বিকে পেয়ে তার ভাইকে মারার কারণ জানতে চায়। একপর্যায়ে রুমকী ওই যুবকে চড় মারেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রাব্বির লোকজন গত রোববার রায়হানের বাড়িতে হামলার চেষ্টা করে। এ ঘটনায় গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় স্থানীয় মেম্বার মোবারক হোসেনের উপস্থিতিতে রঙ্গীলা বাজারে সালিশ বসে। এ সময় মেম্বারের সামনে অভিযুক্তরা রায়হানসহ মা ও বোনকে গালিগালাজ ও চরমভাবে অপমান করে এলাকা ছাড়ার হুমকি দেয়।

রুমকি আরও বলেন, ‘মোবারক মেম্বার সালিশে রায়হানকে মারতে আমার মাকে হুকুম দেন। অভিযুক্তদের চাপে মা সালিশে রায়হানকে দুটি চড় মারেন। মেম্বারের হুকুমে আমি শতশত লোকের সামনে অভিযুক্তদের পা ধরে মাফ চাইতে বাধ্য হয়েছি। সালিশ শেষে ঘরে এসে রায়হান অপমানে ছটফট করতে থাকে। বাসার লোকজন তাকে শান্ত করার চেষ্টা করে। অপমান সহ্য করতে না পেরে রায়হান আত্মহত্যা করেছে।’

মেম্বার মোবারক হোসেন বলেন, ‘মারধর ও পা ধরে মাফ চাওয়ার মতো কোনো ঘটনা সালিশে ঘটেনি। আমি সালিশে দুই পক্ষকে মিলিয়ে দিয়েছি। তবে রায়হান কেনো আত্মহত্যা করলো তা জানা নেই আমার।’

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পরিবারে অভিযোগের ভিত্তিতে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।