ঢাকারবিবার , ৩ মার্চ ২০২৪
  1. অগ্নিকান্ড
  2. অনুষ্ঠান
  3. অপরাধ
  4. অবৈধ বালু উত্তোলন
  5. অভিনন্দন
  6. অর্থনীতি
  7. আইন ও বিচার
  8. আওয়ামী লীগ
  9. আওয়ামী লীগে
  10. আক্রান্ত
  11. আটক
  12. আত্মহত্যা
  13. আদালত
  14. আনন্দ মিছিল
  15. আন্তর্জাতিক
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দেবীগঞ্জে জনদুর্ভোগে রয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ

লিটন প্রধান পঞ্চগড়
মার্চ ৩, ২০২৪ ৯:৫৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

দেবীগঞ্জে জনদুর্ভোগে রয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ

লিটন প্রধান পঞ্চগড়

পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলা ( সাবেক ছিটমহল) বর্তমানে বাংলাদেশ ৭ নং ট্রেপ্রীগঞ্জ ইউনিয়নের বেউলাডাংগা ও নাটকটকা মাস্টার পাড়া গ্রামের ব্রিজের বেহাল অবস্থা চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে কয় একটি গ্রামের হাজারো মানুষ।

খালে সেতুটি প্রায় ৭ বছর ধরে থুবরে পরে আছে। এতে যাতায়াতে রাস্তা সহ চরম দুর্ভোগ পোহতে হচ্ছে ঐ ইউনিয়নের কয়েকটি পাড়ার জনগন,শুষ্কনো মৌসুমে এ পথে সেতুর নিজ স্থানটি ধান ক্ষেত দিয়ে ঘুরে যাওয়া গেলেও বর্ষা মৌসুমে যাতায়াতকারীদের অনেক দূর দিয়ে পথ ঘুরে চলাচল করতে হচ্ছে।

এছাড়াও নারী-পুরুষ, বয়স্ক মানুষ ও রোগীসহ বিদ্যালয়গামি শিক্ষার্থীরা যাতায়াতে চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। এ নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে বার বার দাবী জানালেও এত দিনেও সেতুটি সংস্কার বা পুনঃনির্মাণের ব্যবস্থা করেনি কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয়রা জানান, ২০১৫ সালে ব্রিজের নির্মাণ কাজ শেষ হলে ২০১৬ সালে বন্যার পানির তোড়ে সেতুটি ধসে পড়ে। এরপর ২০১৬ সালে সড়ক থেকে বিছিন্ন হয়ে যায় সেতুটি। ফলে গ্রামীণ জনপদের লোকজন ভোগান্তির মধ্যে রয়েছে। ঐ ধসে পড়া সেতুটি বছরের পর বছর পার হলেও নির্মাণের এখনও কোন উদ্যোগ নেওয়া হয়নি বলে জানান স্থানীয়রা।

এভাবে পড়ে থাকা সেতুটি কবে নির্মিত হবে এমন আশঙ্কা এলাকার ভুক্তভোগীরা।

এ নিয়ে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে,দীর্ঘদিনের ধসে পড়া সেতুটি সংস্কার বা পূণঃনিম্মান না হওয়ায় জনমনে দেখা দিয়েছে চরম ক্ষোভ। দীর্ঘদিন ধরেই এভাবেই সেতুটি মুখ থুবরে পরে থাকায় এই ইউনিয়নের লোকজনদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। অপরদিকে ধসে পড়া সেতু ও রাস্তা-ঘাটের অবস্থা খারাপ থাকার কারণে যানবাহন ঢুকতে না পারায় এলাকার ব্যবসা-বাণিজ্য অনেক টাই স্থবির হয়ে পড়েছে। মাস্টার পাড়া গ্রামের নাম প্রকাশ করতে অনিচ্ছুক বলেন,ছেলেমেয়েদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যেতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

একটা অসুস্থ রোগীকে চিকিৎসার জন্য শহরে নেওয়া খুবই কষ্টকর হয়ে পড়ে। তাই দ্রুত সেতু নির্মাণ করা হলে আর ভোগান্তি থাকবে না। কয়েকজন কৃষক বলেন, এখানে সেতু না থাকায় তাঁদের মতো কৃষকদের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। তারা কৃষিপণ্য শহরে সহজে নিয়ে যেতে পারেন না। কৃষিপণ্য গ্রামেই বিক্রি করতে হচ্ছে তাতে আশানুরূপ মূল্যও মিলছে না। ফলে দীর্ঘদিন ধরে এলাকাবাসী সেতুটি পুননির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছে। শিক্ষার্থীরা এ সড়কে প্রতিদিন বিদ্যালয়ে যাতায়াত করে।

শুষ্কনো মৌসুমে বেশি অসুবিধা না হলেও বর্ষা মৌসমে এদিক দিয়ে যাওয়ার সমস্যা হয় বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। স্থানীয় এলাকাবাসী দাবি ব্রিজের দুই পাশে রাস্তা সহ এই ব্রিজটি দ্রুত ভাবে পুঃন নির্মাণ করা হোক।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।