ঢাকাTuesday , 20 June 2023
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অবৈধ বালু উত্তোলন
  4. অভিনন্দন
  5. অর্থনীতি
  6. আইন ও বিচার
  7. আক্রান্ত
  8. আটক
  9. আত্মহত্যা
  10. আনন্দ মিছিল
  11. আন্তর্জাতিক
  12. আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস
  13. আবহাওয়া
  14. আর্থিক সহোযোগিতা
  15. আলোচনা সভা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে গড়ে উঠেছে হিলিতে বলদ গরুর খামার

Link Copied!

কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে গড়ে উঠেছে হিলিতে বলদ গরুর খামার

দিনাজপুর হাকিমপুর প্রতিনিধি
মোঃওয়াজ কুরনী

হিলি: কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে দিনাজপুরের হিলিতে প্রথমবারের মতো বাণিজ্যিকভাবে বলদ গরুর খামার গড়ে উঠেছে। এই খামারে রয়েছে ৮৬টি বলদ গরু। বিভিন্ন জায়গা থেকে এগুলোকে সংগ্রহ করা হয়েছে। এখানে কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হয়েছে ১৬ জন বেকারের।

খামারি জানান, এই খামারে ৪ কোটি টাকা মূল্যের গরু রয়েছে। এসব গরুর দাম সর্বনিম্ন ২ লাখ থেকে ২০ লাখ টাকা পর্যন্ত। এদিকে খামারিকে গরু পালনে সব ধরনের সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছেন উপজেলা প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তর।

সরেজমিনে গিয়ে সোমবার দুপুরে ঘুরে দেখা যায়, হিলি একটি সীমান্তবর্তী এলাকা। এই এলাকার মানুষরা এক সময় বর্ডারের উপর নির্ভরশীল হয়ে থাকতো। তবে বর্তমান তারা বিভিন্ন কর্ম করে জীবিকা নির্বাহ করে আসতেছে। এরই ধারাবাহিকতায় হিলিতে এক বিশাল বলদ গরুর খামার গড়ে উঠেছে।

খামারি সুমন ইসলাম বলেন, কোরবানি ঈদকে সামনে রেখে উপজেলার চরিপট্টি এলাকায় ৮৬টি বলদ গরু দিয়ে গড়ে তুলেছি এই খামার। খামারে ব্যস্ত সময় পার করছি আমরা। বলদগুলোকে মোটাতাজার করে ঈদে বিক্রি করে দুই টাকা আয় করার চিন্তা ভাবনা করছি। শ্রমিকরা কেউ খড় দিচ্ছেন, কেউ বা দিচ্ছেন ভূসি ও ধানের তুষের খাবার। খামার দেখাশোনার জন্য ১৬ জন শ্রমিক এখানে মাসিক বেতন হিসাবে কাজ করছেন। খামারের পাশে রয়েছে ঘাসের ক্ষেত। গরু গুলোকে ঘাসের পাশাপাশি খড়, ভুষি, খৈল ও ছোলা খাওয়ানো হয়। দিনে প্রতিটি গরুর খরচ বাবদ মালিকের ব্যয় হয় ৪০০ টাকা। আবার একেকজন শ্রমিকের মাসে বেতন ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা। কোরবানিতে গরুগুলো বাজারজাত করে অধিক মুনাফার আশা করছেন খামারি সুমন। তিনি বলেন, নিজেকে স্বাবলম্বী করতে ৪ মাসের প্রজেক্ট নিয়ে খামার করেছি। আমার খামারে ৮৬টি বলদ গরু আছে।

তার খামারে কর্মরত কয়েকজন শ্রমীক বলেন, হিলি একটি সীমান্তবর্তী এলাকা। এই এলাকায় আগে আমরা বর্ডারের উপর নির্ভর করে চলতাম। বর্তমান বর্ডার বন্ধ হওয়ায় আমরা মানবেতর জীবন যাপন করতাম। তবে এলাকায় একটা খামার হওয়ায় আমাদের জন্য উপকার হয়েছে । আমরা এই খামারে কাজ করে যে টাকা পাই তা দিয়ে সংসার ভালো ভাবে চালাতে পারি। আমরা এখানে ১০ জন শ্রমিক কাজ করি। কেউ গরুকে খাদ্য খাওয়ায়, আবার কেউ গোসল করিয়ে দেই। এতে আমরা মাস গেলে ১৫ থেকে ১৬ হাজার টাকা পাই তা দিয়ে আমাদের চলে।

কয়েকজন এলাকাবাসী বলেন, হিলিতে প্রথমবারের মতো বলদ গরুর খামার তৈরী হয়েছে। আসলে এই খামারে অনেক বড় বড় গরু রয়েছে। এবং অনেক গুলো বলদ গরু রয়েছে। দেখে মনে হচ্ছে সুমন ভাই একজন সফল খামারী। তার এই খামার দেখে আমার খুব ভালো লাগতেছে। আমারও ইচ্ছা তার দেখাদেখি আমারও এমন খামার করার আশা রয়েছে।

হাকিমপুর উপজেলা প্রাণী সম্পদ সম্প্রসারণ কর্মকতা নাছরিন খাতুন বলেন, হিলিতে এই প্রথমবারের মতো বলদ গরুর খামার গড়ে উঠেছে। মুলত কুরবানি ঈদকে সামনে রেখে এমন খামার করেছেন খামারি। আমি নিজে এই খামার পরিদর্শন করেছি। আমরা সব সময় এই খামারিকে সর্বার্থক সহযোগিতা করে যাচ্ছি এবং এনার দেখাদেখি কেউ এমন খামার করতে চাইলে আমরা সব ধরনের সহযোগিতা করবো। হাকিমপুর উপজেলায় মোট গরু, মহিষ ও ছাগলের খামার রয়েছে ৩ হাজার ২৩৯ টি। ঈদ উপলক্ষে ১৫ হাজার ৭৩৭টি কোরবানির পশু প্রস্তুত রয়েছে। তার মধ্যে চাহিদা রয়েছে ১৪ হাজার ২২টি। চাহিদা ছাড়াও অতিরিক্ত রয়েছে ১ হাজার ৭১৫টি পশু।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।