ঢাকাবৃহস্পতিবার , ২ নভেম্বর ২০২৩
  1. অগ্নিকান্ড
  2. অনুষ্ঠান
  3. অপরাধ
  4. অবৈধ বালু উত্তোলন
  5. অভিনন্দন
  6. অভিযোগ
  7. অর্থনীতি
  8. আইন ও বিচার
  9. আওয়ামী লীগ
  10. আওয়ামী লীগে
  11. আক্রান্ত
  12. আটক
  13. আত্মহত্যা
  14. আদালত
  15. আনন্দ মিছিল

বেকারত্ব ঘুচাতে ও কর্মসংস্হান সৃষ্টির লক্ষে সাতক্ষীরা ইন্টারন্যাশনাল

Link Copied!

বেকারত্ব ঘুচাতে ও কর্মসংস্হান সৃষ্টির লক্ষে সাতক্ষীরা ইন্টারন্যাশনাল

মোঃ মুজাহিদ  ক্রাইম রির্পোটার সাতক্ষীরা  :

প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমীকদের রেমিট্যেন্সে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। দেশের উন্নয়নে অপরিসীম ভূমিকা রাখছে প্রবার্সী বাংলাদেশিরা। তাদের কষ্টে অর্জিত টাকায় বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে আজ পরিচিত। দেশের মানবসম্পদ রপ্তানি ও বিদেশে কর্মী প্রেরণের ক্ষেত্রে সারাদেশের মধ্যে সাতক্ষীরা পিছিয়ে।

জনশক্তিকে মানবসম্পদে রুপান্তর করে সাতক্ষীরাকে উন্নয়ন করার অপর সম্ভাবনা রয়েছে জেলায়। তবে জেলায় বিদেশে কর্মী প্রেরণে সরকার অনুমোদিত কোন রিক্রটিং এজেন্সি না থাকায় বিড়ম্বনার শিকার হতে হয় অনেকের। সাতক্ষীরা জনশক্তিকে কাজে লাগিয়ে দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত প্রতিষ্টান, সাতক্ষীরা ইন্টারন্যাশনাল।

প্রতিষ্ঠানটি জেলায় বৈদেশিক কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে গুরুপূর্ন অবদান রেখে চলেছে। বেকারত্ব দূর করে কর্মীদের ভাগ্য উন্নয়নে রয়েছে তাদের অভাবনীয় সাফল্য। “সাতক্ষীরা ইন্টারন্যাশনাল” ২০০৮ সালে চালু হওয়ায় বিদেশে কর্মী প্রেরণে নতুন সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।
জনশক্তি রপ্তানিতে সাতক্ষীরার
৭ টি উপজেলা থেকে মাসে ১০ হাজার দক্ষ অদক্ষ কর্মী বিদেশ যাওয়ার সুযোগ রয়েছে।

জনসচেতনতা ও সঠিক তথ্য না জানায় সুযোগ থাকা সত্ত্বেও জেলার মানুষ বিদেশে কাজ করতে যেতে পারছেন না। মানবসম্পদ উন্নয়নে বর্তমান সরকারের সুদুরপ্রসারি পরিকল্পনায় সাতক্ষীরার বিনেরপোতায় গড়ে উঠেছে, কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি)। সাতক্ষীরা জেলা অফিস থাকলেও কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) প্রতিষ্ঠানটি উপজেলা ভিত্তিক সম্প্রসারণ হয়নি।

বাকি উপজেলায় পর্যায়ক্রমে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করা হবে বলে জানান কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের কর্মকর্তারা। সাতক্ষীরা জেলায় সরকার অনুমোদিত কোন রিক্রটিং এজেন্সি না থাকায় চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে বিদেশ গামী কর্মীদের।
অননুমোদিত রিক্রটিং এজেন্সির দালাল চক্রের খপ্পরে পড়ে প্রতারিত হয়েছেন অনেকে।
যে কারণে এ জেলার অনেক মানুষ বিদেশ পাড়ি দিতে গিয়ে ভিটে মাটি হারিয়েছে।

যার ফলে বিদেশ যাওয়ার ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও বিদেশ যেতে আগ্রহী নয় অনেকে।
সবকিছু বিবেচনা করে দক্ষকর্মী নিয়োগে সুনামের সাথে
সরকারের কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের তত্ত্বাবধানে সরকার অনুমোদিত “সাতক্ষীরা ইন্টারন্যাশনাল” ২০০৮ সালে তাদের কার্যক্রম শুরু করে। ২০০৮ সালের পর থেকে দেশের মানবসম্পদ উন্নয়নে তারা ব্যাপক সাফল্য অর্জন করে চলেছেন।

তারা বিদেশ যেতে ইচ্ছুক কর্মীদের বিশ্বস্ততার সাথে সরকারী নিয়মে পাঠানোর কার্যক্রম পরিচালনা করেন। সরকারের নিদ্দের্শনা মেনে তারা বিদেশে কর্মী প্রেরণ করেন। এজন্য বেকারত্ব দূরর্কী করণে
সাতক্ষীরা জেলার একমাত্র বৈদেশিক কর্মসংস্থান সৃষ্টির প্রতিষ্টান হিসেবে বিবেচিত হয়েছেন “সাতক্ষীরা ইন্টারন্যাশনাল”।

এ বিষয়ে কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিস সাতক্ষীরার সহকারী পরিচালক মোস্তফা জামান বলেন, সাতক্ষীরা থেকেই সব থেকে কম প্রবাসী বিদেশ যেতেন। বর্তমানে সরকার অনুমোদিত রিক্রেটিং এজেন্টের মাধ্যমে বহু মানুষ বিদেশ যাচ্ছেন। আমরা চাই সাতক্ষীরা জেলার মানুষ নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বিদেশ যাক, তাদের কর্মসংস্থান হোক। আমরা টিটিসি এবং যুব উন্নয়নের মাধ্যমে সরকার অনুমোদিত এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বিদেশে লোক পাঠাতে পারি। এখানে কোন সমস্যা করা হলে আমরা এ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা দের ধরতে পারবো। কিন্তু দালালের মাধ্যমে কেউ প্রতারিত হলে আমরা তো তাদেরকে ধরতে পারবো না।

“সাতক্ষীরা ইন্টারন্যাশনাল”এর স্বত্বাধিকারী,আলহাজ্ব শেখ নজরুল ইসলাম বলেন,
আমরা সরাসরি বিদেশ যেতে ইচ্ছুকদের বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পাঠাবো। এখানে প্রতারিত হওয়ার কোন সুযোগ নেই। মানুষ যাতে কম খরচে প্রবাসি কল্যান ব্যাংক থেকে সল্প সুদে লোন নিয়ে বিদেশ যেতে পারে সে ব্যবস্থা আমরা করে থাকি। সরকারের সকল নিয়ম কানন মেনে বৈধ পথে আমরা প্রবাসে কর্মী প্রেরণ করছি। এলাকাভীত্তিক দালালের খপ্পরে পড়ে অনেকে ভিটেমাটি হারাচ্ছেন এজন্য সরকার অনুমোদিত প্রতিষ্ঠান থেকে বিদেশে যাওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।

Design & Developed by BD IT HOST